• বনানী ধর্ষণ মামলায় পুলিশের চার্জশিটে পাঁচ আসামী

    .ছবির কপিরাইটফোকাস বাংলা
    Image caption মামলার প্রধান আসামী সাফাত আহমেদকে আদালতে নেয়া হচ্ছে (ফাইল ফটো)

    বাংলাদেশের পুলিশ চাঞ্চল্যকর বনানী ধর্ষণ মামলায় পাঁচ ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দায়ের করেছে।

    অভিযুক্তদের মধ্যে আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে সাফাত আহমেদও রয়েছেন।

    মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বৃহস্পতিবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

    পুলিশ কর্মকর্তারা জানাচ্ছেন, অভিযোগপত্রে সাফাত আহমেদ ছাড়াও তাঁর দুই বন্ধু নাঈম আশরাফ ও সাদমান সাকিফ, গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন এবং দেহরক্ষী আবুল কালাম আজাদের নাম রয়েছে।

    অভিযোগপত্রে এই পাঁচজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছে তারা জানান।

    মামলার আসামী পাঁচজন সবাই পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন।

    তবে এরা ধর্ষণের অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

    গত ২৮শে মার্চ ঢাকার বনানীতে একটি হোটেলে আয়োজিত জন্মদিনের পার্টিতে আমন্ত্রণ জানিয়ে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন দুইজন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী।

    ঘটনা ঘটার প্রায় দেড় মাস পর পুলিশের কাছে গেলে পুলিশ শুরুতে মামলাটি নিতে চায়নি বলেও অভিযোগ রয়েছে।

    মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, সাফাত আহমেদ এবং নাইম আশরাফই সরাসরি ধর্ষণে অংশ নিয়েছিল। বাকি তিনজন সহযোগিতা করেছে।

    আরো পড়ুন: একের পর এক ধর্ষণ, কিন্তু বিচারের নাম-গন্ধ নেই